কাপাসিয়ার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী যারা

শাহবাজ খান মাশফি : কাপাসিয়া উপজেলার ১১ টি ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচন ১১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার অবাধ নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। যদিও প্রতিপক্ষ প্রার্থীরা ভোট কারচুপি ও এজেন্টদের ভয় দেখিয়ে কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ তুলেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কায় বিজয়ী হয়েছেন ৮ জন। ২ জন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহৗ প্রার্থী আনারস ও মোটর সাইকেল প্রতীকে এবং একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব এম.এ ওহাব খান খোকা মোটর সাইকেল প্রতীকে বিজয়ী হয়েছেন। কাপাসিয়া উপজেলার নির্বাচন অফিসার ও রির্টানিং অফিসার আবুল বাশার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

-বিজ্ঞাপন-

উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব এম.এ ওহাব খান খোকা মোটরসাইকেল প্রতীকে ৮২৬০ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়বারের মত বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের এমএ গাফফার নৌকা প্রতীকে ৭৩৩৮ ভোট পেয়েছেন। এ উপজেলার একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী এম.এ ওহাব খান খোকা ৯২২ ভোটের ব্যবধানে আ.লীগের বর্তমান চেয়ারম্যান গাফফারকে পরাজিত করেন।

প্রতিপক্ষ গাফফারের লোকজন ভোটারদের কেন্দ্রে যেতে নিরুৎসাহিত করেছেন বলে স্থানীয় ভোটাররা অভিযোগ করেন। তারা জানান, ভোট কারচুপির জন্য গাফফারের লোকজন কেন্দ্রের ভিতরেও নানাভাবে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করে। অনেক কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীর এজেন্টদেরও তারা বের করে দেয় বলে অভিযোগ উঠে। কিন্তু মিডিয়াকর্মীদের কড়া নজরধারী ও প্রশাসনের নিরপেক্ষতায় শেষ পর্যন্ত গাফফারকে পরাজয় বরণ করতে হয়।

একইভাবে বারিষাব ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম আতাউজ্জামান বাবলু আনারস প্রতীকে ৬৮৯০ ভোট পেয়ে পুনরায় বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চশমা প্রতীকে মনোয়ার হোসেন আকন্দ ৬০৮৯ ভোট পেয়েছেন। এখানেও মিডিয়াকর্মীদের কড়া নজরধারী ও প্রশাসনের নিরপেক্ষতায় শেষ রক্ষা পাননি মিজানুর মাষ্টার।

চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের অপর বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইকবাল মাহমুদ খান মোটর সাইকেল প্রতীকে ৮১৪৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের মিজানুর রহমান মাষ্টার নৌকা প্রতীকে ৬৯২৮ ভোট পেয়েছেন।

অপরদিকে, বাকী ৮ ইউনিয়নে বিজয় পায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা। সিংহশ্রী ইউনিয়ন পরিষদের আওয়ামী লীগের আনোয়ার পারভেজ খোকন নৌকা নিয়ে ৬৮৬৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আশরাফ উদ্দিন আল আমীন আনারস প্রতীকে ৪৪৯৪ ভোট পেয়েছেন।

টোক ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের এমএ জলিল নৌকা প্রতীকে ১৩৯২৬ পেয়ে পুনরায় বিজয়ী তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শরীফ মো ওয়াহিদ ১০৪৮৬ ভোট পেয়েছেন।

রায়েদ ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের শফিকুল হাকিম মোল্লা নৌকা প্রতীকে ১১২৪২ পেয়ে পুনরায় বিজয়ী তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আমিনা খাতুন মুনমুন চশমা প্রতীকে ২৫০১ পেয়েছেন।

তরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের আয়ুবুর রহমান সিকদার নৌকা প্রতীকে ৯৮৯৫ পেয়ে পুনরায় বিজয়ী তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী খলিলুর রহমান মোটর সাইকেল প্রতীকে ৬২৭৩ পেয়েছেন।

কড়িহাতা ইউনিয়ন পরিষদে মাহাবুবুল আলম নৌকা প্রতীকে ১১৮০৯ পেয়ে পুনরায় বিজয়ী তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোশাররফ হোসেন ৯৯৪ ভোট পেয়েছেন।

ঘাগটিয়া ইউনিয়ন পরিষদে হারুন আর রশিদ হিরণ মোল্লা নৌকা প্রতীকে ৯৯৭৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হারুন আর রশিদ মোটর সাইকেল প্রতীকে ৪২৮৪ ভোট পেয়েছেন।

সন্মানিয়া ইউনিয়ন পরিষদে এড.আবদুল মালেক নৌকা প্রতীক ১৩০৩৮ পেয়ে বিজয়ী তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সিরাজ উদ্দিন মাস্টার ৩১৬৬ ভোট পেয়েছেন।

কাপাসিয়া সদর ইউনিয়ন পরিষদে সাখাওয়াত হোসেন প্রধান নৌকা প্রতীক ১৭১৩৬ ভোট পেয়ে পুনরায় বিজয়ী তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জামাল উদ্দিন দর্জী আনারস প্রতীকে ৩২১৬ ভোট পেয়েছেন।